বেহাল ময়নাগুড়ি বাজারের নিকাশি ব্যবস্থা,ক্ষোভ ব্যবসায়ী দের মধ্যে।

জলপাইগুড়ি, ২০শে, আগস্ট : ময়নাগুড়ি বাজারের বেহাল নিকাশি ব‍্যবস্থা নিয়ে ব‍্যবসায়ী, ক্রেতা এবং সাধারণ মানুষজনদের তীব্র ক্ষোভ রয়েছে। বর্ষায় বৃষ্টি হলেই বাজারের রাস্তা গুলিতে একহাটু জল দাড়িয়ে যাচ্ছে।ফলে ব‍্যবসা মার খাচ্ছে।বাজারে আসছেন না ক্রেতা এবং সাধারণ মানুষজন।নর্দমার জল উপচে পড়ে দোকানের ভেতরে ঢুকে যাচ্ছে। ব‍্যবসায়ীদের জিনিসপত্র নষ্ট হচ্ছে।ব‍্যবসায়ীরা এই বিষয়ে জলপাইগুড়ি জেলা পরিষদে লিখিতভাবে জানিয়েছেন।এরপর বর্ষার মধ্যেই জলপাইগুড়ি জেলা পরিষদের এক বিশেষ প্রতিনিধি দল গত কয়েকদিন আগে বাজার পরিদর্শন করেন।প্রত‍্যেকটি নর্দমা নোংরা আবর্জনায় বন্ধ হয়ে রয়েছে।পরে যদিও বাজারের নর্দমাগুলিকে পরিস্কার করার কাজ হলেও সমস্যা যেই তিমিরে ছিলো সেই তিমিরেই পড়ে আছে।   প্রতিটি নর্দমা ভর্তি রয়েছে প্লাস্টিকের ক‍্যারিব‍্যাগ আর নোংরা আবর্জনায়।ব‍্যবসায়ীরাই ব‍্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন । ময়নাগুড়ি বাজারের ব‍্যবসায়ী বাপী মিত্র বলেন,এরজন্য আমরা নিজেরাই দায়ী।সমস্ত প্লাস্টিক আর নোংরা আবর্জনা প্রতিনিয়ত ফেলছি দোকানের সামনে নর্দমার মুখে।নর্দমাগুলিকে বন্ধ করে প্রশাসনকে দায়ী করছি।এগুলো অবিলম্বে বন্ধ করা প্রয়োজন।এই বিষয়ে ব‍্যবসায়ী সমিতিকেই কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।     নর্দমাগুলো বহু বছরের পুরোনো।পরিকল্পনাও সঠিক নয় এই সময়ে। কারণ বাজারের মাঝখানে একটি মার্কেট কমপ্লেক্স নির্মাণ করা হয়েছে।সেখানে সমস্ত নর্দমাগুলিকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।ময়নাগুড়ি ব্লক কংগ্রেস সভাপতি প্রদীপ ঘোষাল বলেন, খামখেয়ালি পরিকল্পনা। জরদা নদীর পাশে ময়নাগুড়ি বাজার।নিকাশির কোন সমস্যা হবারই কথা নয়।শুধু মাস্টার প্ল্যানের অভাব।যার ফলে গোটা বাজারের বেহাল পরিস্থিতি।জলপাইগুড়ি জেলা পরিষদের সদস্য গোবিন্দ রায় বলেন, আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।কিন্তু এই বিষয়ে সকলকেই সচেতন হতে হবে।প্লাস্টিক ক‍্যারিব‍্যাগ সহ দোকান ও বাজারের ব‍্যবহার্য নোংরা আবর্জনা নর্দমার মধ্যে ফেলা যাবে না।তাহলে নর্দমা বন্ধ হয়ে যাবে।আর সেটাই হয়েছে ময়নাগুড়ি বাজারে।তথাপি আমরা নর্দমাগুলিকে পরিস্কার করানোর কাজ শুরু করেছি।কাজ শেষ হয়ে গেলে আশা করা যায় সমস্যা অনেকটাই মিটে যাবে।    ময়নাগুড়ি বাজার ব‍্যবসায়ী সমিতির যুগ্ম সহকারী সম্পাদক সুমিত সাহা এবং স্বপন দত্ত বলেন, আমরা বারংবার ব‍্যবসায়ীদের এই বিষয়ে সতর্ক করেছি।ব‍্যবসায়ী সমিতির পক্ষ থেকে আবার ব‍্যবসায়ীদের নোটিশ করা হবে।নর্দমার মধ্যে যাতে নোংরা আবর্জনা ফেলানো না হয়।ময়নাগুড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সজল বিশ্বাস বলেন,ফের বাজারে লুকিয়ে বিক্রি করা হচ্ছে প্লাস্টিক ক‍্যারিব‍্যাগ।তেমনি ব‍্যবহার ও করা হচ্ছে।আমরা এরমধ্যেই বাজারে হানা দেব।প্লাস্টিক ক‍্যারিব‍্যাগ বিক্রি এবং ব‍্যবহার পুরোপুরি বন্ধ করতে হবে।তানাহলে এই সমস্যা মিটবে না।
নিজস্ব প্রতিনিধি : জলপাইগুড়ি

Spread the love

 

Related Post

Leave a Comment